যাবজ্জীবন

প্রতিদিন ভোর বেলা;
ঘুমন্ত মুখের পাশে শুয়ে থাকে সেলাই করে রাখা সর্বনাশ
এতো আঁধার, এতো কালো , এতো ছাই ভস্ম জমেছে পৃথিবীতে
পূর্বপুরুষের চাপ চাপ রক্তপাতের মুগ্ধতা নিয়ে বেড়ে উঠছে শিশু ,
শতশতাব্দীর মাধুর্য্য চাপা পড়ে আছে একুশ শতকের বিশেষণহীন হাহাকারের নিচে ।
সিঁড়ি ভেঙ্গে ভেঙ্গে উঠে যাচ্ছে সময়, শুষে খাচ্ছে আয়ু
আমি দেখে যাচ্ছি –
জন্ম থেকে যৌবন, যৌবন থেকে প্রৌঢ়, প্রৌঢ় থেকে মৃত্যু, মৃত্যু থেকে নতুন জন্ম- জন্মান্তরবাদ
এই কি তবে সত্য নয় যে,
আহত অভিমান নিয়ে আমি
আমার জন্য অপেক্ষা করে আছি এতকাল?
এতদীর্ঘ সময় কাটিয়ে দিয়েছি নিজেকে একবার দেখবো বলে…
নিজস্ব পলাতক চোখে চোখ রাখবার জন্য
হারে রে রে হাওয়ার ভেতর মানুষের মতো দিবা-রাত্রি বেঁচে থাকার অভিনয় করে যাচ্ছি
এই বুঝি তবে যাবজ্জীবন দন্ড আমার?

(Visited 37 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *